পপগুরু ও মুক্তিযোদ্ধা আজম খান আর নেই

ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে পপসম্রাটখ্যাত সংগীতশিল্পী ও মুক্তিযোদ্ধা আজম খান আজ (১৯৫০-২০১১)রোববার সকাল ১০টা ২০ মিনিটে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মুখ গহ্বরে ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে লাইফ সাপোর্টে থাকা আজম খানকে মৃত ঘোষণা করেছেন সিএমএইচের চিকিৎসকরা। হাসপাতাল ও আজম খানের পারিবারিক সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। ক্যান্সারাক্রান্ত আজম খানের বয়স হয়েছিলো ৬১ বছর। সিএমএইচ সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার থেকেই আজম খানের শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। আজম খানের মেয়ে ইমা খান জানান, চিকিৎকেরা তাঁদের জানিয়েছেন, তাঁর বাবা আজম খানের শারীরিক অবস্থা আসলে ভালো নয়। আজম খানকে গত বুধবার রাতে স্কয়ার হাসপাতাল থেকে সিএমএইচে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁকে বিশেষায়িত আইসিইউতে রাখা হয়েছিল। সেখানে তাঁর চিকিৎসার সার্বিক তত্ত্বাবধান করেন সিএমএইচের চিকিৎসক কর্নেল পাশা।

গত ২২ মে আজম খান তাঁর বাঁ হাতে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করেন। ওই দিনই দ্রুত তাঁকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সে দিন থেকেই স্কয়ার হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন বাংলাদেশে পপ সঙ্গীতের এই অগ্রপথিককে। এর আগে গত বছর জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে আজম খানের মুখগহ্বর জিহ্বার নীচে ক্যানসার ধরা পড়ে। এরপর ১৪ জুলাই উন্নত চিকিৎসার জন্য শিল্পীদের সম্মিলিত উদ্যোগে তাঁকে পাঠানো হয় সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে। তারপর ২০ জুলাই মাউন্ট এলিজাবেথ মেডিকেল সেন্টারের ইএনটি হেড নেক সার্জন বিভাগের প্রধান অ্যান্ড্রু লয় হেং চেংয়ের তত্ত্বাবধানে আজম খানের মুখে সফল অস্ত্রোপচার করা হয়। সর্বশেষ ২৭ ডিসেম্বর ২০১০ সালে ২১ টি টমোথেরাপি, রেডিওথেরাপি ও একটি কেমোথেরাপি নেওয়ার পর কয়েকটি থেরাপি বাকি রেখেই তিনি দেশে ফিরে আসেন।

প্রসঙ্গত, ২১ বছর বয়সে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেওয়া এ সঙ্গীত শিল্পী স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে গঠন করেন ব্যান্ড দল উচ্চারণ। বাংলাদেশ টেলিভিশনে তার প্রথম কনসার্ট প্রচারিত হয় ১৯৭২ সালে। ১৯৭৪ এবং ১৯৭৫ সালে বাংলাদেশ টেলিভিশনে রেললাইনের ওই বস্তিতে গেয়ে স্থান করে নেন বাংলার মানুষর হৃদয়ে। বাংলাদেশে পপ সঙ্গীতের জনপ্রিয়তা আজম খানের হাত ধরেই। দেশে এ জগতে কিংবদন্তী মনে করা হয় তাকে। আজম খানের কণ্ঠে ওরে সালেকা, ওরো মালেকা, আলাল ও দুলাল, অনামিকা, অভিমানী, আসি আসি বলে গানগুলো এখনো ফেরে মানুষের মুখে মুখে।

তাঁর এই অকাল মৃত্যুতে পিসি হেল্পলাইন বিডি (বাংলাদেশ) এর আমরা সকল মেম্বার শোকাহত এবং তাঁর রুহের আত্বার মাগফেরাত কামনা করি।

One thought on “পপগুরু ও মুক্তিযোদ্ধা আজম খান আর নেই

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s